• শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ১১:৫৯ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]

বিজ্ঞপ্তি জারির পর ১৫৬ সহকারী প্রকৌশলী নিয়োগ নিয়ে বিপাকে পিএসসি

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশিত : শুক্রবার, ৭ জুলাই, ২০২৩

বিজ্ঞপ্তি জারির পর ১৫৬ সহকারী প্রকৌশলী নিয়োগ নিয়ে বিপাকে পিএসসি
নিয়োগ দিতে বলে এখন বাতিল চাইছে এলজিইডি

আমাদের রংপুর ডেক্স :
৪০তম বিসিএসে নন-ক্যাডার থেকে প্রথম শ্রেণির (গ্রেড-৯) সহকারী প্রকৌশলীর শূন্য পদে ১৫৬ জনের নিয়োগ দিতে বলে এখন আবার জ্যেষ্ঠতার দোহায় দিয়ে বাতিল চাচ্ছে স্থানীয় সরকার প্রকৗশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি)। চূড়ান্ত নিয়োগের সুপারিশের আগমুহূর্তে নিয়োগ বাতিলের আবেদনে বিপাকে পড়েছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)।
কেননা ৪০তম বিসিএসের নন-ক্যাডারের যে তালিকা প্রকাশ করেছে, তাতে এসব পদও নির্বাচন করার সুযোগ রাখা হয়েছে। অনেক প্রার্থী এলজিইডির সহকারী প্রকৌশলীকে পছন্দক্রমে রেখে আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছেন। আবেদনের সময় শেষ হয়ে গেছে। এই সময় এসে এসব পদ বাতিলের আবেদনকে প্রহসন বলছেন নন-ক্যাডারের নিয়োগের অপেক্ষায় থাকা পরীক্ষার্থীরা। তারা বলছেন, জ্যেষ্ঠতার যুক্তিতে রিকুইজিশন বাতিল করাটা অমানবিক ও অযৌক্তিক। প্রয়োজনে সমস্যা সমাধান করে হলেও ১৫৬টি পদের নিয়োগ বাতিল না করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তারা।
১৫৬ সহকারী প্রকৌশলী নিয়োগের বিষয়ে জানতে চাইলে পিএসসির চেয়ারম্যান সোহরাব হোসাইন বলেন, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের চিঠি আমাদের নজরে এসেছে। কিন্তু এ বিষয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় আমাদের যা করতে বলবে, আমরা তাই করব। নিয়োগ কমানো বা বাড়ানো সরকারের এক্তিয়ার। তবে এ বিষয়ে দ্রæত সিদ্ধান্ত আসতে হবে, না হলে নন-ক্যাডার নিয়োগে দেরি হবে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, দুই দফা ১৫৬ সহকারী প্রকৌশলী শূন্য পদের নিয়োগের চাহিদা দিয়েছিল এলজিইডি। ২০২২ সালের ৩ আগস্ট স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী ৪০তম বিসিএস নন-ক্যাডার থেকে সুপারিশের জন্য সহকারী প্রকৌশলী (পুর) ১৫৬ পদের অধিযাচন পাঠান। গত বছরের ২৮ আগস্ট স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে শূন্য পদের তালিকা পিএসসিতে পাঠানো হয়। গত বছরের ২ নভেম্বর স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে এক চিঠিতে ১৫৬টি পদের অধিযাচন বাতিলের জন্য বলা হয়। বাতিলের কারণ হিসেবে বলা হয় ভবিষ্যতে জ্যেষ্ঠতার সমস্যা তৈরি হতে পারে। তবে জনবলের চাহিদা থাকায় গত বছরের ১৫ ডিসেম্বর স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর জ্যেষ্ঠতার বিষয় নিয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগ ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনা করে আবারও ১৫৬ পদের চাহিদা পাঠায় স্থানীয় সরকার বিভাগে। চলতি বছরের ২৯ জানুয়ারি অধিযাচনের চিঠি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় হয়ে গত ১৯ ফেব্রæয়ারি পিএসসিতে আসে।

গত ১৯ জুন নন-ক্যাডার পছন্দক্রমের জন্য আবেদন আহ্বান করে পিএসসি। কিন্তু ঐদিনেই প্রধান প্রকৌশলী আবার ১৫৬ পদের অধিযাচন বাতিল চেয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগে চিঠি দেন। গত ২৬ জুন স্থানীয় সরকার বিভাগ অধিযাচন বাতিলের চিঠি দেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী উল্লেখ করেন, ৪০তম বিসিএস থেকে এই ১৫৬ জন প্রকৗশলী নিয়োগ দিলে ‘ইতিপূর্বে সরাসরি নিয়োগকৃত ২৬৭ জন প্রকৌশলী, যাদের চাকরিকাল ইতিমধ্যে দুই বছরের বেশি অতিবাহিত হয়েছে, তারা জুনিয়র হিসেবে বিবেচিত হবেন (নন-ক্যাডার পদোন্নতি ও জ্যেষ্ঠতা বিধিমালা-২০১১-এর-৪(১) (ক) মোতাবেক)। এতে প্রশাসনিকসহ জ্যেষ্ঠতা তালিকা নিয়ে ভবিষ্যতে জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে।’ অর্থাৎ ২৬৭ জন প্রকৌশলী যারা ইতিপূর্বে পিএসসির সার্কুলারের মাধ্যমে নিয়োগ পেয়েছিলেন, তাদের সার্কুলারের তারিখ ৪০তম বিসিএস সার্কুলারের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের তারিখের পর হওয়ায় বিধিমালা অনুযায়ী আগে যাদের সার্কুলার, তারা জ্যেষ্ঠতা পাবেন। অর্থাৎ এই নিয়োগ হলে ৪০তম বিসিএসের নন-ক্যাডার থেকে নিয়োগ পেতে যাওয়া ১৫৬ জন ইতিপূর্বে সরাসরি নিয়োগ পাওয়া ২৬৭ জনের ওপর জ্যেষ্ঠতা পাবেন, যদিও ২৬৭ জনের চাকরিকাল প্রায় ২ বছর।


এ জাতীয় আরও খবর :