• শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ১২:১৯ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]

আমাদের রংপুর ডেক্স

মহিষখোচা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলন-২০২২

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশিত : বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২

মহিষখোচা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলন-২০২২

আমাদের রংপুর ডেক্স :

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আদিতমারী উপজেলার মহিষখোচা ইউনিয়নের ত্রি বার্ষিক সম্মেলন-২০২২ অনুষ্ঠিত হয়।

বুধবার বিকালে মহিষখোচা স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে সারপুকুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আনিছার রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ এমপি।সম্মেলনের উদ্বোধক ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ্যডভোকেট মতিয়ার রহমান। প্রধান বক্তা, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাকিবুজ্জামান আহমেদ,আদিতমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যক্ষ মো: রবিউল ইসলাম মানিক,সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মোঃ রফিকুল আলম, মহিষখোচা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোসাদ্দেক হোসেন,ভেলাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী, সারপুকুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলা প্রধান, সাবেক চেয়ারম্যান মনসুল আলী ও জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এস নীলকমল রায়।


সমাজকল্যাণ মন্ত্রী বলেন,১৯৭৫ সালে জিয়াউর রহমান ষড়যন্ত্রে ও স্বাধীনতা বিরোধীরা যারা স্বাধীনতা চাননি,স্বাধীনতাকে মেনে নিতে পারেননি তারাই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের অধিকাংশ সদস্যকে হত্যা করে দেশকে পাকিস্তান বানাতে চেয়েছিল।
দীর্ঘ ২১ বছর পর ১৯৯৬ সালে জনগণের ভোটে বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় এসে তাদের সে ষড়যন্ত্র নস্যৎ করে দেয়।
মন্ত্রী বলেন,জিয়াউর রহমান নিজেকে মুক্তিযোদ্ধা জাহির করে সর্ব প্রথম হাজার হাজার বীর মুক্তিযোদ্ধাকে হত্যা করেছে।
খালেদা জিয়াও একই কায়দায় মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে বিকৃত করে মুক্তিযোদ্ধাদেরকে অপমানিত করেছেন। আর শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য ভাতা ও বিনামূল্যে পাঁকা বাড়ি “বীর নিবাস” তৈরি করে দেন।
শেখ হাসিনা দেশের যে উন্নয়ন করেছেন তা দেখে বিশ্বের নেত্রারা অবাক হয়েছেন।
তিঁনি আরো বলেন, খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান পরিকল্পিতভাবে আবারও একটি ১৫ আগস্ট সৃষ্টির লক্ষে শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্যেশে ২০০৪ সালের ২১ আগস্টে গ্রেনেড হামলাসহ ১৯ বার হত্যার চেষ্টা করেছিল।কিন্তু আল্লাহর বিশেষ রহমতে জণগণের দোয়ায় তিঁনি বার বার বেঁচে গেছেন।
সমাজকল্যাণ মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী অসহায়, গরিব দু:খী, বিধবা, স্বামী পরিত্যাক্তা, বয়স্ক, প্রতিবন্ধি ভাতা প্রদান করেন। এছাড়াও সমাজের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্টির জীবনমান উন্নয়নের লক্ষে এককালিন ১৮ হাজার টাকা করে অনুদান প্রদান করেন।

মন্ত্রী আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে শেখ হাসিনাকে ভোট দিয়ে আবারো প্রধানমন্ত্রী করে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার উদাত্ত আহবান জানান।

সম্মেলনে মহিষখোচা ইউনিয়নে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের ভোটাভুটিতে জনাব আনিছার রহমান সভাপতি ও আব্দুল মান্নান কামালকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়।

 

 

 

 

 

 

 


এ জাতীয় আরও খবর :