• শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ০৯:২৮ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় ঢুকে বাংলাদেশিদের ঘর ভাঙচুর করলো বিএসএফ 

নিজস্ব প্রতিনিধি
প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০২১

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় ঢুকে বাংলাদেশিদের ঘর ভাঙচুর করলো বিএসএফ

আমাদের রংপুর ডেক্স :

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বাংলাদেশ সীমান্তে প্রবেশ করে আয়নাল হক নামে এক বাংলাদেশির বসত-ঘর ভাঙচুর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ এর বিরুদ্ধে। এ সময় বিএসএফ এর হামলায় দুই নারী আহত হয়েছেন। পরে এলাকাবাসী তাদের বাধা দিলে বিএসএফ ককটেল বিস্ফোরণ করে পালিয়ে যায়।

গত সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) রাতে উপজেলার সিঙ্গিমারী ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের পকেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

আহতরা হলেন, উপজেলার পকেট এলাকার আয়নালের মা মনোয়ারা বেগম ও শাশুড়ি রেনু বেওয়া। ভুক্তভোগী বাংলাদেশি আয়নাল হক উপজেলার ওই এলাকার নূরল হক ওরফে নূরল পরীর ছেলে।

জানা গেছে, সোমবার রাতে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী ফুলবাড়ী ক্যাম্পের বিএসএফরা বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে ওই এলাকার আয়নাল হকের বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় তার বসত ঘরের টিনের বেড়া ও গেট ভাঙচুর করে। এছাড়া বিএসএফ’র হামলায় মনোয়ারা ও রেনু বেওয়া নামে দুই নারী আহত হয়। এতে এলাকাবাসী বাধা দিলে বিএসএফ ককটেল বিস্ফোরণ করে পালিয়ে যায়।

আহত মনোয়ারা বেগম বলেন, আমার স্বামী ও ছেলেরা নরসিংদী ইট ভাটায় কাজ করতে গেছে। বাড়িতে কোন পুরুষ নেই। এরই মধ্যে বিএসএফ বাংলাদেশে প্রবেশ করে আমার ছেলের বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় ঘরের টিনের বেড়া, দরজা ভাঙচুর করে।

আহত রেণু বেওয়া বলেন, আমার মেয়ের জামাই নরসিংদী ইট ভাটায় কাজ করতে গেছে। মেয়ে একা থাকায় আমি তাদের বাসায় আছি। সোমবার রাতে বিএসএফ বাংলাদেশে প্রবেশ করে হামলা ও ভাঙচুর করেছেন। এ সময় বাধা দিতে গেলে আমাদেরও উপর হামলা চালায়। এতে আমরা আহত হই।

স্থানীয় বাসিন্দা রাজু ইসলাম বলেন, বিএসএফ মদ খেয়ে এসে বাংলাদেশে উল্টা পাল্টা কাজ করে। বাড়িতে পুরুষ মানুষ না থাকায় তারা মহিলা মানুষের উপর আক্রমণ করার চেষ্টা করে। আমরা ধাওয়া করলে তারা ককটেল বিস্ফোরণ করে পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে সিংগীমারী বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড বিজিবি ক্যাম্পের নায়ক সুবেদার মফিদুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এসেছি। এ বিষয়ে বিজিবির পক্ষ থেকে বিএসএফকে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। এ নিয়ে আগামীকাল বুধবার পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

এ বিষয়ে ৬১ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বিজিবির তিস্তা ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মীর হাসান মো. শাহরিয়ার মাহমুদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমরা তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এ ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছি। আজ লিখিত প্রতিবাদ জানানো হবে।


এ জাতীয় আরও খবর :